গাড়ির বীমা সম্পর্কে
  • সস্তায় গাড়ি বীমা কিনুন
  • অনলাইনে গাড়ি বীমা নবায়ন করুন
  • তৃতীয় পক্ষ এবং অ্যাড-অন কভার
PX step

অনলাইনে গাড়ি বীমা কোটের তুলনা করুন

অথবা

আপনার যদি গাড়ি থাকে, তাহলে তার সুরক্ষার দায়িত্বও আপনার। আর একটি গাড়ির বিমাই পারে, আপনার গাড়ির আপদকালীন পরিস্থিতিতে তার আর্থিক সুরক্ষা প্রদান করতে। একটি গাড়ির বীমার মাধ্যমে আপনার বিমাকৃত গাড়ির হওয়া যে কোনো রকম ক্ষতি যেমন দুর্ঘটনা, চুরি যাওয়া, আগুনে পুড়ে যাওয়া, যন্ত্রাংশ জ্বলে যাওয়া, বজ্রপাত, গোলযোগ, হরতাল, সন্ত্রাসবাদ, প্রাকৃতিক দুর্যোগ (ভূমিকম্প, বন্যা ইত্যাদি), রেল/সড়ক/বিমান ইত্যাদির দ্বারা ক্ষতির ফলে আর্থিক লোকসানের হাত থেকে রক্ষা করে।

গাড়ির বীমার প্রয়জনীয়তা

ভারতবর্ষের মত জনবহুল দেশে প্রতি ঘন্টায় প্রায় 55 টি সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। আর আপনার গাড়িও এই দুর্ঘটনার কবলে পড়তে পারে। এর ফলে আপনার গাড়ির হওয়া ক্ষতির মেরামতির জন্য খরচ দুর্লভ হয় বা তার যোগান সময়মতো সম্ভবপর না হয়? এর দায়ভার তাহলে কার বর্তাবে? তাই গাড়ির মেরামতির খরচের দুশ্চিন্তা না করে, গাড়ির বীমা করানো খুব প্রয়োজন। একটি সঠিক কার ইন্সুরেন্স এর দ্বারা এই সমস্যার সমাধান করা সম্ভব। যাঁরা তাঁদের গাড়ির সঠিক বীমা করিয়ে রাখেন তাঁরা বীমা প্রদানকারী সংস্থার থেকে সাহায্য চাইতে পারেন ও সঠিক সময়ে গাড়ি মেরামতির জন্য আবেদন জানাতে পারেন। এমনকি অন্য কারোর দায়বদ্ধতার কারণেও যদি আপনার গাড়ি ক্ষতিগ্রস্থ হয়, তার জন্যও আপনি বীমা সংস্থার কাছে দাবি জানাতে পারেন। এসব কিছুই সম্ভব যদি আপনার গাড়ির সঠিক বীমা থাকে। অন্যথায় আপনাকে নিজেকে এর ব্যয় ভার গ্রহন করতে হবে।

একটি গাড়ির দুর্ঘটনার ফলে চালক ও গাড়ির যে ক্ষতি হয় তার আর্থিক খরচের শুধু যোগান দিতেই এই কার ইন্সুরেন্স সাহায্য করে না বরং তা নানা আইনি ঝামেলার হাত থেকে রক্ষা পেতে সাহায্য করে। আর এই জন্য ভারতের আইন কানুন অনুযায়ী একটি গাড়ির বীমা থাকা অত্যাবশ্যকীয়। ভারতের মটর ভেহিকেল আইন, 1988-র 11 তম প্রচ্ছেদ (145 ও 146 অধ্যায়) অনুযায়ী, একটি থার্ড পার্টির গাড়ি বীমা থাকা আবশ্যিক। 

সম্প্রতি ভারত সরকার আইন কানুনের অনেক রদ বদল করেছে এবং সড়ক দুর্ঘটনা রুখতে ও গাড়ি চালানোয় সুরক্ষা আরও জোরদার করতে নানান জরিমানা লাগু করেছে। আর্থিক জরিমানার পাশাপাশি, হাজতবাসের সাজা প্রণয়ন করা হয়েছে। এরই ফলস্বরূপ সরকার মটর ভেহিকেল আইন 2019 এ অনেক রদ বদল ঘটিয়েছে যা কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার দ্বারা সম্প্রতি পাস হয়।

ভারতবর্ষে গাড়ির বীমার পরিকল্পনার প্রকারভেদ

ভারতবর্ষে, বর্তমান কার ইন্সুরেন্সগুলিকে মোটামোটি দুটি প্রধান ভাগে ভাগ করা যেতে পারে। এই দুটি প্রকারের বীমাই আপনার গাড়ির সাথে ঘটা কোন অনভিপ্রেত দুর্ঘটনার ফলে হওয়া আর্থিক ক্ষতি থেকে সুরক্ষা প্রদান করে। উক্ত দুই ধরনের গাড়ির বীমা নীচে তালিকাভুক্ত করা হলো-

তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতার পরিকল্পনা 

তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতার পরিকল্পনার আওতায় থাকা কোনো ব্যক্তির দ্বারা তৃতীত পক্ষের গাড়ির কোনো ক্ষতি বা লোকসান হলে তার সুরক্ষা প্রদানে বীমা সংস্থাটি দায়বদ্ধ। তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতার পরিকল্পনার আওতায় বীমা প্রদানকারী সংস্থাটি পলিসির গ্রাহককে কোনো রকম সুবিধা প্রদানে দায়বদ্ধ থাকবে না। অটো ভেহিকেল আইন 1938 এর অধীনে সুরক্ষা প্রদানের নুন্যতম ঝুঁকির বিষয়টির প্রতি যত্নশীল হতে এটি কার্যকরী করা হয়েছে।

তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতার বীমার উদ্ধৃতিতে বেশ কিছু বিষয়ের সংমিশ্রণ থাকে যেমন:

  • তৃতীয় পক্ষের প্রিমিয়াম
  • গাড়ির নিজস্ব চালকের দুর্ঘটনার কভারেজের
  • পণ্য ও পরিষেবা কর 

বিস্তৃত পরিকল্পনা (ব্যাপক বীমা)

সবথেকে কার্যকরী গাড়ির বীমা হলো বিস্তৃত পরিকল্পনার বিমাটি যেখানে তৃতীয় পক্ষের পাশাপাশি বীমার আওতায় থাকা ব্যক্তিকেও বিস্তৃত কভারেজ প্রদান করা হয়। তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতা বা আপনার গাড়ির কোনো রকম ক্ষতির বা লোকসানের সর্বাধিক সুরক্ষা এই পরিকল্পনার আওতায় প্রদান করা হয়।

বিস্তৃত পরিকল্পনার আওতায় যে সমস্ত উপদানগুলি থাকে সেগুলি হলো:-

  • তৃতীয় পক্ষের প্রিমিয়াম ও নিজস্ব ক্ষতির প্রিমিয়াম।
  • গাড়ির নিজস্ব চালকের দুর্ঘটনার কভারেজের প্রিমিয়াম।
  • পণ্য ও পরিষেবা করের সাথে সাথে আরও অন্যান্য অতিরিক্ত কভারেজ।

গাড়ির বীমার সুবিধাগুলি

ভারতবর্ষে আইন অনুযায়ী গাড়ি চালাতে গেলে একটি কার ইন্সুরেন্স থাকা আবশ্যিক। কিন্তু কেবলমাত্র আইনের হাত থেকে রক্ষা পাওয়াই এই বীমার মুখ্য উদ্দেশ্য নয়। একটি বীমা কেবলমাত্র আইন মেনে চলার জন্য কার্যকরী নয়, বরং এটি গাড়ির মালিককে অনেক সুবিধা প্রদান করে ও খুশি রাখে। এই ধরনের সুবিধাগুলি নিচে তালিকাভুক্ত করা হলো:

চুরি অথবা ক্ষতির অন্তর্ভুক্তি

একটি গাড়ির বিমার মাধ্যমে বিমাকৃত ব্যক্তিটি দুর্ঘটনা, আগুনে ক্ষতি হওয়া, চুরি বা প্রাকৃতিক দুর্যোগের কভারেজ লাভ করেন।

ব্যক্তিগত দুর্ঘটনার অন্তর্ভুক্তি

দুর্ঘটনার কবলে পড়ার জন্য হাসপাতালে চিকিৎসার যা খরচ হয় তার অন্তর্ভুক্তি বিমাকৃত ব্যক্তিটি পান।

চালানের অন্তর্ভুক্তি

যদি কোনো কারণে দুর্ঘটনার ফলে গাড়ি চুরি হয়ে যায়, তার জন্য এটি পলিসির আওতায় থাকা ব্যক্তির পক্ষে সম্পূর্ণ একটি অতিরিক্ত সুবিধা প্রদান করে।

দাবিহীন বোনাস

যদি আপনি বীমার মেয়াদের মধ্যে কোনো রকম দাবি না করে থাকেন, তাহলে পলিসিটি নবীকরনের সময় আপনি 5% থেকে 50% পর্যন্ত ছাড় পাবেন।

পথিপার্শ্বস্থ সহায়তা

এর দ্বারা আপনি নানান সুবিধা যেমন আপদকালীন যাতায়াত ব্যবস্থা, প্রতিদিনের খরচ, ট্যাক্সির সুবিধা ইত্যাদি লাভ করতে পারবেন।

অতিরিক্ত অন্তর্ভুক্তি

আপনি প্রাথমিক অন্তর্ভুক্তির পাশাপাশি, অন্যান্য অতিরিক্ত সুবিধা লাভ করতে পারবেন যদি বিস্তৃত অন্তর্ভুক্তি পছন্দ করেন তো। এটি একটি বীমা সংস্থা থেকে অপর সংস্থার ক্ষেত্রে ভিন্ন হয়।

শুন্য অবচয় অন্তর্ভুক্তি

শুন্য অবচয় অন্তর্ভুক্তির আওতায়, বীমা সংস্থাটি মূল্যহ্রাস মানের জায়গায় গাড়ির প্রকৃত দাম প্রদান করবে।

প্রতিস্থাপন অন্তর্ভুক্তি

আপনি যদি গাড়ির চাবি হারিয়ে ফেলেন, এই সুবিধার দ্বারা আপনি গাড়ির নতুন লকের খরচ পেয়ে যাবেন। 

বীমার পরিকল্পনায় যেগুলি অন্তর্ভুক্ত ও বহির্ভূক্ত

কি কি অন্তর্ভুক্তি করা হয়

  • দুর্ঘটনার ফলে হওয়া আপনার গাড়ির সমস্ত ক্ষতি, এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকে।
  • দুর্ঘটনার ফলে আপনার যদি প্রাণহানি/চিরস্থায়ী প্রতিবন্ধকতা হয়, তার সুবিধা পেতে দায়বদ্ধ।
  • বন্যা বা ভূমিকম্পের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগের থেকে আর্থিক সুরক্ষা প্রদান।
  • যদি চুরি যায়, তাহলে আপনার বীমা সংস্থাটি IDV এর সমপরিমাণ অর্থ প্রদানে দায়বদ্ধ থাকবে।
  • মানুষের দ্বারা সৃষ্ট বিপর্যয় যেমন দাঙ্গা, অবরোধ, অগ্নি সংযোগ, এবং সন্ত্রাসবাদ ইত্যাদিও অন্তর্ভুক্ত।

কোনটি অন্তর্ভুক্ত নয়

  • মাদকাসক্ত হয়ে গাড়ি চালানোর জন্য গাড়ির কোনো ক্ষতি হলে।
  • যুদ্ধ ও নিউক্লিয়ার ঝুঁকির জন্য কোনো রকম
  • চুরি বা ক্ষতি হলে।
  • কোনো বেআইনি কার্যকলাপের ফলে গাড়ির কোনো ক্ষতি হলে।
  • বৈধ লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালিয়ে কোনো ক্ষতির সম্মুখীন হলে।
  • নিত্য দৈনন্দিন কারনের জন্য কোনো যান্ত্রিক ত্রুটি মেরামতির ফলে হওয়া কোনো খরচ।

কেন অনলাইনে তুলনা করবেন?

মোটর ভেহিকেল আইন, 1988 অনুযায়ী,ভারতবর্ষে গাড়ির বৈধ কার ইন্সুরেন্স থাকাটা আবশ্যিক। ভারতে বিভিন্ন সংস্থা আপনাকে গাড়ির বীমা প্রদান করে থাকবে। তাই বহু সংস্থার দ্বারা প্রদত্ত নানান বীমার সুবিধার মধ্যে কোনটি আপনার জন্য সঠিক তা নির্বাচন করা আপনার পক্ষে কষ্টকর হয়ে উঠবে। এখানে Policyx.com এ, বিনামূল্যের উদ্ধৃতির মাধ্যমে আমরা আপনার জন্য সর্বোত্তম বীমা পলিসিটি বেছে নিতে সাহায্য করবো যা আপনার গাড়ির বীমার প্রিমিয়ামের উপর 60% পর্যন্ত ছাড় পেতে সাহায্য করবে।

নানান অপশন: নানান অপশনের তালিকা থেকে আপনি আপনার গাড়ির জন্য সর্বোত্তম বীমার পলিসিটি বেছে নিতে পারেন। অনেকগুলি অপশন উপলব্ধ হওয়ার জন্য আপনি খুব সহজেই অনলাইনে একটি পলিসির সাথে অপরটির তুলনা করে কোন বীমা সংস্থার কোন বীমা পলিসিটি আপনার জন্য সুবিধযোগ্য তা নির্ধারণ করতে পারবেন।

সুবিধাজনক: এটি বীমা প্রদানকারী শীর্ষ সংস্থাগুলির উদ্ধৃতিকে একসাথে তুলনা করতে সাহায্য করে। অনলাইনে কোনো রকম ঝক্কিহীনতা ও সরলতা এই পদ্ধতিকে আরও সুবিধাজনক করে তোলে।

স্বচ্ছতা: অনলাইনে বসে বসে গাড়ির বীমার পলিসির তুল্যমূল্য বিচার করলে আপনাকে একটি সুস্পষ্ট ধারণা প্রদান করবে এবং সেই বিষয়টি সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খ জানতে সাহায্য করবে। এর মাধ্যমে আপনি বীমার প্রিমিয়াম সম্পর্কে সঠিক ধারণা লাভ করতে পারবেন ও বীমার আওতায় কোনগুলি অন্তর্ভুক্ত ও কোনগুলি নয় তার স্বচ্ছতা প্রদান করবে।

নুন্যতম কাগজপত্রর প্রয়োজন: আপনি যদি ভাবছেন যে অনলাইনে বীমা ক্রয় করলে অনেক কাগজ ও নথিপত্রের প্রয়োজন তাহলে তা সম্পূর্ণ ভুল। আমরা আপনাকে একদম নুন্যতম কাগজপত্র ব্যবহারের মাধ্যমে বীমার সুবিধা প্রদান করবো ও আপনাকে অনলাইনে সেই সংক্রান্ত প্রয়জনীয় নথিপত্রের সফ্ট কপি প্রদান করবো যার দ্বারা এই সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ নথিপত্রের হারিয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা কমবে ও তা সুরক্ষিত থাকবে।

গাড়ির বীমা সংস্থার দাবির নিষ্পত্তির অনুপাত

একজন ব্যক্তি তাঁর গাড়ির বীমা করান এই কারনে যে প্রয়জনের সময়ে যখন গাড়ি সংক্রান্ত যে আর্থিক ক্ষতি হয় যা বীমার আওতায় সুরক্ষিত সেটি সঠিক সময়ে দাবি করে যাতে পেয়ে যাওয়া যায়। কিন্তু ভাবুন তো যদি তা সঠিক সময় অনেক ঝক্কি পেরিয়েও না পাওয়া যায় তাহলে তা কতটা বেদনাদায়ক? আর এই জন্যই গ্রাহকদের দাবির নিস্পত্তি সঠিক সময়ে সঠিকভাবে করার সাফল্যের হার একটি বীমা সংস্থার কতখানি তা জেনে নেওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। 

তাই এর সাথে সাথে এটি জানা খুব জরুরি কিভাবে আপনি এই দাবি জানাবেন এবং তার নিস্পত্তি কিভাবে ঘটে! 

নিচে বেশ কিছু নামি সংস্থার তালিকা দেওয়া হলো যারা গাড়ির বীমা প্রদান করে ও যাদের দাবির নিষ্পত্তির অনুপাত সর্বোত্তম।

2016-2018 পর্যন্ত দাবির নিষ্পত্তির হার

ক্রমিক নং

বীমা সংস্থা

দাবির নিষ্পত্তির অনুপাত(2016-2017)

দাবির নিষ্পত্তির অনুপাত(2017-2018)

1

বাজাজ এলিয়ান্স ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড

78.50%

77.61%

2

ভারতী এক্সা জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

76.88%

98.50%

3

চলামন্ডলম ইন্সুরেন্স কোম্পানি

40.07%

39.96%

4

ফিউচার জেনারেলি ইন্সুরেন্স কোম্পানি

78.93%

87.82%

5

এইচডিএফসি আর্গ হেলথ ইন্সুরেন্স

50.76%

52.78%

6

ইফকো টোকিও জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

104.30%

90.79%

7

লিবার্টি ভিডিওকন জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

74.37%

75.58%

8

ম্যাগমা এইচডিআই জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

181.20%

34.93%

9

ন্যাশনাল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

126.98%

115.55%

10

নিউ ইন্ডিয়া ইন্সুরেন্স কোম্পানি

102.94%

103.19%

11

ওরিয়েন্টাল জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

128.23%

113.86%

12

রাহেজা কিউবিই জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

126.70%

18.19%

13

রিলায়েন্স জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

91.39%

106.54%

14

রয়াল সুন্দরম জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

63.09%

61.41%

15

এসবিআই জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

53.43%

52.93%

16

শ্রীরাম জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

38.57%

50.83%

17

টাটা এআইজি জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানি

57.20%

60.68%

18

ইউনাইটেড ইন্ডিয়া ইন্সুরেন্স কোম্পানি

138.51%

110.95%

19

ইউনিভার্সাল সম্পো জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি

86.14%

104.17%

গাড়ির বীমার নবিকরন

আপনার গাড়ির বীমার নবিকরনের জন্য আপনি এই পেজটির একদম উপরে অবস্থিত quote সেকশনে যান। আমাদের নবিকরনের পদ্ধতিটি খুবই সোজা ও ঝঞ্ঝাটহীন। আপনি আপনার পলিসিটি নবিকরনের সময় আমাদের সাহায্য ক্রমাগত পেয়ে যাবেন অথবা আপনি পোর্টেবলিটি বা বিস্তৃত অন্তর্ভুক্তি পছন্দ করতে পারেন।

গাড়ির বীমার নবিকরনের চেকলিস্ট

  • সঠিক অন্তর্ভুক্তি: যাঁদের কাছে কেবলমাত্র তৃতীয় পক্ষের ক্ষতির অন্তর্ভুক্তির পরিকল্পনা আছে, তাঁদের একবার বিস্তৃত অন্তর্ভুক্তির ব্যাপারে চিন্তা ভাবনা করা উচিত। এই ধরনের কার্যকরী ও সহযোগী পরিকল্পনার মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার কাঙ্খিত অন্তর্ভুক্তিটি পেয়ে যাবেন এবং তা আপনাকে অনেক দিক থেকে সুরক্ষিত করে রাখবে।
  • IDV চেক করুন: এর মাধ্যমে আপনি গাড়ি চুরি বা হারিয়ে গেলে তার ক্ষতিপূরণ পাবেন। প্রিমিয়াম এর পরিবর্তে গাড়ির IDV র পুনর্বিচার করে সর্বোত্তম দাম সম্পর্কে ধারনা লাভ করুন।
  • দাবির উপর নজর রাখুন: দাবির নিষ্পত্তির বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনি যদি আপনার আগের বীমা সংস্থার দাবির নিষ্পত্তির ব্যাপারটি সঠিকভাবে না খেয়াল করে থাকেন তাহলে এক্ষুনি তা দেখে নিন।
  • নগদহীন গ্যারেজের পরিষেবার দিকটি দেখুন: অপনার বাসস্থাসনের সন্নিকটে যে সমস্ত গ্যারাজ নগদহীনভাবে গাড়ির মেরামতির পরিষেবা প্রদান করে, সেগুলি একবার দেখে নিন।
  • অতিরিক্ত পরিষেবা: উপরোক্ত পরিষেবাগুলির পাশাপাশি আরও অনেক অতিরিক্ত পরিষেবা যেগুলি আপনার জন্য সর্বোত্তম হবে তা একবার দেখে নিন।
  • ছাড় ও ডিসকাউন্ট এর সুবিধা নিন: সমস্ত রকম উপলব্ধ ডিস্কাউন্টের সুবিধা লাভ করুন। এই ছাড়ের পরিমানটি আপনাকে প্রতিবার দাবি করার পূর্বে প্রতিশোধ করতে হবে।

অনলাইনে কিভাবে নবিকরন করবেন?

  • আমাদের ওয়েবসাইটে গিয়ে বেশ কিছু প্রাথমিক বিবরণ পূরণ করুন।
  • প্রতিটি বিবৃতি পড়ে দেখুন ও সিদ্ধান্ত নিন কোনটি আপনার চাহিদা পূরণের জন্য উপযোগী।
  • বিভিন্ন মাধ্যমের দ্বারা আপনি অর্থ পরিশোধ করতে পারেন যেমন নেট ব্যাঙ্কিং, ডেবিট/ ক্রেডিট কার্ড ও অন্যান্য উপায়।
  • আপনি আমাদের বিশেষজ্ঞ দলের কাছ থেকে ব্যক্তিগত সাহায্যের জন্যও আবেদন করতে পারেন।

গাড়ির বীমার প্রিমিয়ামের হিসেব

আপনার গাড়ির বীমার পরিকল্পনাটি সচল রাখতে একটি নির্দিষ্ট অঙ্কর অর্থ পরিশোধ করতে হয়। এটিকেই বীমার প্রিমিয়াম বলে। এই প্রিমিয়াম সকলের জন্য সমান হয় না। এক বিমাকারীর সাথে অপর বিমাকারীর এবং এক মডেল থেকে অন্য মডেলের জন্য বীমার প্রিমিয়াম ভিন্ন হয়। গাড়ির বীমার প্রিমিয়ামের অঙ্ক হিসাব করতে নিম্নে প্রদত্ত ফর্মুলাটি ব্যবহার করতে পারেন, এবং কোন কোন নির্ণায়ক বা বিষয়ের উপর এই বীমার প্রিমিয়াম নির্ভরশীল, একবার সেটিও দেখে নিন।

প্রিমিয়াম= আপনার নিজস্ব ক্ষতির প্রিমিয়াম -(কোনো দাবিহীন উদ্বৃত্ত + ডিসকাউন্ট) +আইআরডিএ কর্তৃক নির্ধারিত স্থির দায়বদ্ধ প্রিমিয়াম + অতিরিক্ত পরিষেবার খরচ।

নিম্নে উল্লিখিত পয়েন্টগুলির উপর ভিত্তি করার, একটি সংস্থা গাড়ির বীমার প্রিমিয়াম নির্ধারণ করে

গাড়ির নির্মাণ সাল: এটি গাড়ির বয়স নির্ধারণ করে। এটি খুবই স্বাভাবিক যে পুরোনো গাড়ির বীমার অন্তর্ভুক্তি একটি নতুন বিশেষত নবনির্মিত গাড়ির তুলনায় কম হবে।

মোটরগাড়ির নিবন্ধিকরনের সানিকট্য: আপনার বাসস্থান এবং যে স্থান থেকে আপনি মোটরগাড়িটি নিবন্ধিকরন করেছেন তার দূরত্ব গাড়ির বীমার প্রিমিয়ামের উপর প্রভাব ফেলে।

মোটরগাড়ির মডেল: যদি মোটর গাড়িতে খুব দামি অথবা অসাধারন যন্ত্রাংশ থাকে, তাহলে খুব স্বাভাবিক ভাবেই গাড়ির সুরক্ষার খরচও বৃদ্ধি পাবে।

মোটরগাড়ির ক্রয়ের উদ্দেশ্য: মোটরগাড়ির বীমা বহনকারীরা ব্যক্তিগত ও বাণিজ্যিক অন্তর্ভুক্তি প্রদান করে। যদি কোনো গাড়ি ব্যবসার কাজে লাগে, তাহলে এটির অন্তর্ভুক্তির পরিমাণও বেশি হয়।

নিরাপত্তার যন্ত্রাদি: বর্তমান দিনের মোটরগাড়িগুলিতে নিরাপত্তা সক্ষম এবং চুরি-প্রতিরোধক যন্ত্রাদি দ্বারা সমৃদ্ধ। আপনার গাড়িটি যদি নিরাপদ হয় তাহলে আপনি 2.5% পর্যন্ত ছাড় পেতে পারেন।

দাবির রেকর্ড: আপনি যদি আপনার গাড়ির বীমা থাকার জন্য ক্ষতিপূরণের দাবি করেন, তাহলে প্রিমিয়ামের অঙ্ক বেড়ে যেতে পারে। যদি আপনি দাবি করা থেকে বিরত থাকেন, তাহলে আপনাকে নো ক্লেম বোনাস(এনসিবি) দ্বারা পুরস্কৃত করা হবে।

উদাহরণস্বরূপ, আপনার কাছে যদি সুইফট ডিজায়ার গাড়ি থাকে তাহলে আপনার বীমার প্রিমিয়ামটি বাজাজ আলিয়ানজ জেনারেল ইন্সুরেন্স কোম্পানির 1 বছর মেয়াদের - বিস্তীর্ণ বীমার পরিকল্পনা অনুসারে হবে।

নথিবন্ধের সাল

গাড়ি

মডেল

প্রিমিয়াম

2018

মারুতি সুইফট ডিজায়ার

LXI(1298 cc)

7586

 

আপডেট - IRDAI এর জারি করা নতুন নোটিফিকেশন অনুযায়ী, তৃতীয়-পক্ষের বীমার আবশ্যিক বৈশিষ্ট্যের কথা ভেবে, বীমার সংস্থাগুলিকে নিশ্চিত করতে হবে যে তৃতীয় পক্ষের বীমার সুবিধাটি তাদের সংস্থাতে সমস্ত চ্যানেলে এবং অন্তর্ভুক্ত অনলাইন মাধ্যমটিতেও উপলব্ধ থাকতে হবে।

নতুন নোটিফিকেশনের আওতায়, তৃতীয় পক্ষের দায়বদ্ধতার জন্য প্রিমিয়ামের মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে যা জুন 16 2019 থেকে কার্যকরী হবে।

তৃতীয় পক্ষের নতুন প্রিমিয়াম হারের সাথে পূর্বের তুলনা

তৃতীয় পক্ষের পূর্বের ও নতুন প্রিমিয়ামের হারের তুলনা

ইঞ্জিনের ক্ষমতাযুক্ত ব্যক্তিগত গাড়ি

প্রিমিয়ামের শতাংশ বৃদ্ধি

1000cc ও 1500cc এর ভিতরে

12.50%

1500 cc বেশি

কোনো পরিবর্তন নেই

1000 cc কম

12%

কিভাবে দাবির আবেদন জানাবেন?

কোনো দুর্ঘটনা বা আপদকালীন পরিস্থিতির সম্মুখীন হলে, আপনার উচিত বীমা প্রদানকারীকে যত দ্রুত সম্ভব তা জানানো। এর দুটি উপায় আছে - হয় নগদহীন পন্থা না হয় পরবর্তী পরিশোধের পন্থা অবলম্বন করুন।

নগদহীন

দাবি আদায়ের জন্য এটি সর্বোত্তম উপায়। গ্যারেজের নেটওয়ার্ক এর সাহায্য নিয়ে, সংস্থা নগদহীন দাবির সুবিধা প্রদান করে যেখানে আপনাকে একটি পয়সাও খরচ করতে হবে না। আপনাকে শুধুমাত্র নিচের ধাপগুলি মেনে চলতে হবে।

  • আপনার বীমা সংস্থাকে যত শীঘ্র সম্ভব তা জানান।
  • সমীক্ষককে আপনার গাড়ি ও সমস্ত ঘটনাটি পর্যবেক্ষণ করতে দিন।
  • সমস্ত ডকুমেন্টস জমা দিন।
  • অনুমোদন পাওয়ার পর, সমীক্ষক সরাসরি গ্যারেজের সাথে যোগাযোগ করবেন এবং আপনার হয়ে অর্থ পরিশোধ করবেন।

পরিশোধ

  • বীমা প্রদানকারীকে তাদের টোল ফ্রি নম্বর / অথবা মেইল এর মাধ্যমে জানান।
  • দাবির ফর্মটি পূরণ করুন।
  • ড্রাইভিং লাইসেন্স, আরসি বই, পলিসির নথির নকল প্রদান করুন।
  • প্রয়োজনে, এফআইআর-ও জমা দিন।
  • ফর্মের সাথে আনুমানিক খরচের বিল, রশিদ এবং অর্থ পরিশোধের নথি জুড়ে দিন।
  • বীমা প্রদানকারী সংস্থাটি আপনার বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করবে এবং সেইমত আপনার সাথে যোগাযোগ করে নেবে।
  • সম্মতি লাভের পর, সেই সম্বন্ধিত দলটি আপনাকে সরাসরি বকেয়া অর্থ মিটিয়ে দেবে।