বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা
  • শীর্ষ বীমা প্রদানকারীদের সেরা পরিকল্পনা
  • তাত্ক্ষণিকভাবে তুলনা করুন এবং কিনুন
  • 80 ডি এর আওতায় ট্যাক্স সুবিধা
PX step

অনলাইনে স্বাস্থ্য বীমার দরগুলি তুলনা করুন

1

2

নাম
কার জন্য কভার
জন্ম তারিখ (বয়োজ্যেষ্ঠ সদস্যটির)

1

2

ফোন নং.
শহর

অগ্রসর হওয়ার মাধ্যমে আপনি আমাদের শর্তাবলী এবং গোপনীয়তার প্রকল্পটি গ্রহণ করছেন

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনাগুলো বিশেষভাবে নির্মাণ করা হয়েছে সেই মানুষদের চাহিদা মেটাবার জন্য যারা 60 থেকে 75 বছর বয়সী বয়স গ্রূপের মধ্যে পড়েন। যখন বরিষ্ঠ নাগরিকদের স্বাস্থ্য বীমার প্রসঙ্গ আসে, আপনি একাধিক সুবিধা পান যেমন হাসপাতালে নগদবিহীন ভর্তি, নিঃশুল্ক অ্যাম্বুলেন্স সেবা এবং গুরুতর অসুস্থতার জন্য কভারেজ ইত্যাদি। 

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা মূলত একটি প্রয়োজনীয়তা, বিশেষ করে সেই সব ক্ষেত্রে যখন এক ব্যক্তি অবসর নিয়েছেন এবং তার অবসরউত্তর জীবন পেনশনের টাকায় এবং তাদের সঞ্চয়ের থেকে প্রাপ্ত সুদে উপভোগ করতে চান। একাধিক জেনারেল বীমা কোম্পানি বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা চালায় এবং এটি খুব গুরুত্বপূর্ণ যে এমন একটি বেছে নেওয়া যা সহজে আপনার সব চাহিদা পূরণ করতে পারে এবং আপনার সব অসুস্থতায় একটি কার্যকর স্বাস্থ্য কভার প্রদান করতে পারে। 

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা: বৈশিষ্ট্য

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনার কয়েকটি মুখ্য বৈশিষ্ট্য হলো:

  • এটি বরিষ্ঠ নাগরিকদের উচ্চ বীমাকৃত রাশি বেছে নিতে দেয় যা সমস্ত ডাক্তারি প্রয়োজনীয়তা মেটাবার জন্য যথেষ্ট হবে। 
  • বেশিরভাগ বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা জীবনব্যাপী পূর্ননবীকরণ প্রদান করে। 
  • অনেক ডাক্তারি সংক্রান্ত সুবিধা যেমন জৰুৰীকালীন অ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস এবং কিছু নির্দিষ্ট অসুখের জন্য কভার বরিষ্ঠ নাগরিকদের জন্য থাকা প্রায় সব স্বাস্থ্য বীমা পলিসি দ্বারা কভার করা হয়। 
  • একটি নির্দিষ্ট সময়ের পরে প্রাক বিদ্যমান অসুখ কভার পাবার যোগ্য হয়। 
  • পলিসি ধারকরা নগদবিহীন চিকিৎসার জন্য যেতে পারেন এবং এমনকি আসল হাসপাতালে ভর্তির পরে সমস্ত ডাক্তারি সংক্রান্ত খরচের পরিশোধের দাবি করতে পারেন। 
  • বরিষ্ঠ নাগরিকদের জন্য কয়েকটি স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা আছে যা ব্যক্তিদের কভারেজ দেয় সেই একই পরিকল্পনার অধীনে তার স্বামী / স্ত্রীকে কভার করার বিকল্পের সাথে। 
  • অনেক বরিষ্ঠ নাগরিক বীমা পলিসি কো পেয়ের বিকল্প দেয়। কো পেয়ের বেছে নেওয়া আপনার জন্য কম প্রিমিয়াম দেয় এবং কিছু ক্ষেত্রে এটি আপনার ছাড় পাওয়ার যোগ্যতা দেয়। 

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা: সুবিধা

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য পরিষেবা পরিকল্পনা এমন ভাবে নির্মিত হয় যাতে এটি তার গ্রাহকদের একাধিক সুবিধা দিতে পারে:

কোনো প্রাক পলিসি ডাক্তারি পরীক্ষা প্রয়োজন হয় না 

বেশির ভাগ বীমাকারীরা বরিষ্ঠ নাগরিকদের জন্য স্বাস্থ্য বীমা পলিসি কেনার আগে ডাক্তারি পরীক্ষার দাবি করে না। 

ওপিডি (বহিঃবিভাগ রোগী) কভার

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা কোম্পানিরা ওপিডি কভার প্রদান করে যা আর্থিক চাহিদা মেটাতে সাহায্য করে যখন কিছু রোগের চিকিৎসা ডাক্তারের ক্লিনিকে গিয়ে বা চিকিৎসকের পরামর্শে করা সম্ভব হয়। 

বিশেষ ছাড় 

যদি আপনি আপনার স্বামী / স্ত্রীর সাথে একসাথে একটি বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পলিসির জন্য নাম নথিভুক্ত করছেন, বীমা কোম্পানি মোট প্রিমিয়ামে 5% পারিবারিক ছাড়ের সুবিধা প্রদান করে। 

দ্বিতীয় মতামতের বিকল্প 

আপনার প্রথম মতামত সবসময় কার্যকর হয় না এবং একটি রোগের সঠিক চিকিৎসার জন্য আপনি একটি দ্বিতীয় মতামতের জন্য যেতে রাজি হতে পারেন। বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য পরিকল্পনা আপনাকে একজন চিকিৎসকের কাছ থেকে দ্বিতীয় মতামত নিতে অনুমোদন করে, সাধারণভাবে একটি ই-মতামত (প্রতিবছর).

ডমিসিলিয়ারি চিকিৎসার খরচ 

অনেক বরিষ্ঠ নাগরিক পরিকল্পনাগুলো ডমিসিলিয়ারি চিকিৎসার কভারেজ দেয়, অর্থাৎ যখন ডাক্তার পরামর্শ দিচ্ছেন বাড়িতে চিকিৎসা করতে যেখানে অন্যসময় হাসপাতালে ভর্তি হতে হত যা অন্য স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা দ্বারা কভার হয়। 

স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং নবায়ন 

নিঃশুল্ক বার্ষিক স্বাস্থ্য পরীক্ষার সুবিধা পান জীবনব্যাপী নবায়ন সুবিধার সাথে। 

কর সুবিধা

একটি বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনায় বিনিয়োগ করার সবচেয়ে ভালো জিনিস হচ্ছে পলিসিধারকের প্রদান করা সব প্রিমিয়াম কর সুবিধা পেতে পারে আয়কর আইন 1961 এর বিভাগ 80 ডি এর অধীনে 25,000 টাকা থেকে 75,000 টাকা পর্যন্ত।

ভারতে বরিষ্ঠ নাগরিকদের জন্য জনপ্রিয় স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমাকারী

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা নাম

বীমাকৃত রাশি

প্রবেশের বয়স (বছরে)

প্রাক বিদ্যমান অসুখের জন্য অপেক্ষার সময়কাল 

প্রাক এবং পরবর্তী হাসপাতালে ভর্তির কভার (দিনে যথাক্রমে)

মেডিকেল স্ক্রীনিং পরীক্ষা

ন্যাশনাল ইন্সুরেন্স 

বরিষ্ঠ মেডিক্লেম পলিসি ফর সিনিয়র সিটিজেন 

স্বাস্থ্য কভারেজ: 1 লক্ষ টাকা;
গুরুতর অসুস্থতা: 2 লক্ষ টাকা 

60-80

1 বছরের পরে 

30 & 60

প্রয়োজন নেই (যদি পলিসি ধারক ইতিমধ্যে একটি স্বাস্থ্য পরিকল্পনার অধীনে অন্তত 3 বছরের জন্য কভার থাকেন)

নিউ ইন্ডিয়া

সিনিয়র সিটিজেন মেডিক্লেম পলিসি 

1 - 1.5 লক্ষ টাকা 

60-80

1.5 বছরের পরে 

30 & 60

50 বছরের পরে 

স্টার হেলথ

সিনিয়র সিটিজেন রেড কার্পেট হেলথ প্ল্যান 

1-10 লক্ষ টাকা 

60-75

1 বছরের পরে 

কেবলমাত্র পরবর্তী হাসপাতালে ভর্তির খরচ অন্তর্ভুক্ত হয় 5000 টাকা পর্যন্ত 

প্রয়োজন নেই 

বাজাজ অলিয়ানজ

সিলভার হেলথ সিনিয়র সিটিজেন হেলথ প্ল্যান 

50,000 টাকা থেকে 5 লক্ষ টাকা 

46-70

1 বছরের পরে 

30 & 60

46 বছরের পরে 

কেয়ার হেলথ ইন্সুরেন্স (আগে পরিচিত ছিল রেলিগের হেলথ ইন্সুরেন্স হিসাবে)

কেয়ার সিনিয়র 

3-10 লক্ষ টাকা

61 এবং উপরে

4 বছরের পরে 

30 & 60

প্রয়োজন নেই 

ইউনাইটেড ইন্ডিয়া 

সিনিয়র সিটিজেন মেডিক্লেম পলিসি 

1-3 লক্ষ টাকা

61-80

4 বছরের পরে 

30 & 60

60 বছরের পরে 

এইচডিএফসি এরগো হেলথ

হেলথ অপটিমা সিনিয়র (আগে পরিচিত ছিল এপোলো মিউনিখ হেলথ অপটিমা সিনিয়র হিসাবে)

2-5 লক্ষ টাকা

61 এবং উপরে

3 বছরের পরে 

30 & 60

60 বছরের পরে 

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা কেনার সময় যে বিষয়গুলি মনে রাখতে হবে 

60 বছর বয়সের উর্ধে বাবা মায়ের জন্য একটি স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনায় বিনিয়োগ করা এমন একটি প্রক্রিয়া যা স্মার্টলি করতে হবে। একটি পরিকল্পনা কেনার আগে সেই পরিকল্পনাটিকে নিচের পয়েন্টের ভিত্তিতে বিশ্লেষণ করতে ভুলবেন না। 

উপ সীমা জন্য দেখুন 

বিভিন্ন হাসপাতালের খরচের ওপর একটি উর্ধসীমা বা উপ সীমা দেওয়া থাকে যেমন ওষুধের খরচ, ঘর ভাড়া, ডাক্তারের ফী ইত্যাদি এবং বেশিরভাগ ক্ষেত্রে বীমাকারী দাবির সময়ে বেসিক বীমাকৃত রাশির একটি শতাংশ প্রদান করে। আপনাকে নিজের পকেট থেকে হওয়া খরচের জন্য উপ সীমা চেক করতে হবে। 

নেটওয়ার্ক হাসপাতালের সংখ্যা 

নগদবিহীন প্রক্রিয়ার সুবিধাকে কিছু হারাতে পারে না। কোনো বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনা চূড়ান্ত করার আগে আপনার বাসস্থানের চারপাশে সব নেটওয়ার্ক হাসপাতাল নোট করে নিতে ভুলবেন না। 

অপেক্ষার সময়কাল

সাধারণত পলিসিতে একাধিক অপেক্ষার সময়কাল আছে (প্রাক বিদ্যমান অসুখ, নির্দিষ্ট রোগ যেমন ইএনটি অসুবিধা, অস্টিওপোরেসিস, প্রসূতি ইত্যাদি) যা একজনের বরিষ্ঠ নাগরিকদের জন্য একটি পরিকল্পনা বেছে নেওয়ার আগে খোঁজ রাখতে হবে। প্রথম দিন থেকে শুধুমাত্র দুর্ঘটনাজনিত হাসপাতালে ভর্তি কভার হয় এবং পলিসি শুরু হবার 30 দিন পর্যন্ত অন্য কোনো রোগ কভার হয় না। সাধারণভাবে, প্রাক বিদ্যমান অসুখ কভার পায় কেবলমাত্র 4 বছরের অপেক্ষার সময়কালের পরে। 

প্রাক বিষ্যমান প্রয়োজনীয়তা 

এটি বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য পরিষেবা পরিকল্পনার একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান। একটি পরিকল্পনা কেনার আগে কভারেজ স্পষ্ট হওয়া উচিত। কিছু কোম্পানির 2 থেকে 3 বছরের অপেক্ষার সময়কাল দেয় কিন্তু কেবলমাত্র দাবির 50% প্রদান করতে দায়ী থাকে। যেখানে কিছু ক্ষেত্রে যেমন ডায়াবেটিস এবং তার জটিলতা, উচ্চ রক্তচাপ ইত্যাদি আঠারো মাসের অপেক্ষার সময়কাল প্রযোজ্য হয় কেবলমাত্র অতিরিক্ত প্রিমিয়াম প্রদানের মাধ্যমে। 

মেডিকেল টেস্ট ব্যয়

একটি বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য পরিকল্পনা কেনার আগে একটি ডাক্তারি স্বাস্থ্য পরীক্ষা করার ওপর জোর দিন, এমন কি যদি বীমাকৃত তা এড়াতে চাইছে তাহলেও। বীমা কোম্পানিরা কোনো পরীক্ষার হওয়া ফী বা চার্জ দিতে বা পরিশোধ করতে দায়ী থাকে বিশেষত যখন এটি তাদের তালিকাভুক্ত হাসপাতালে হয়ে থাকে। 

এই পরিকল্পনার অধীনে কভার হওয়া ব্যক্তিরা 

যদি আপনি এই একই পরিকল্পনার অধীনে আপনার সাথে আপনার স্বামী / স্ত্রীকে অন্তর্ভুক্ত করতে চান, আপনার এবং আপনার স্বামী / স্ত্রীএর স্বাস্থ্যের অবস্থা অনুসারে সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন। সেইভাবে পরিকল্পনা করার কথা মনে রাখবেন, সমস্ত প্রয়োজনীয়তা মাথায় রাখবেন আপনার একটি পলিসি কেনার আগে। 

দাবি নিস্পত্তির প্রক্রিয়া 

অযৌক্তিক ঝামেলা এড়াতে এবং মসৃন দাবি নিস্পত্তির জন্য, দাবি নিস্পত্তির অনুপাত এবং দাবি নিস্পত্তির সময় দেখতে ভুলবেন না। একটি উচ্চ দাবি নিস্পত্তির অনুপাত বীমা কোম্পানির নির্ভরযোগ্যতা সংজ্ঞায়িত করে। 

প্রয়োজনীয় নথি

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনার আবেদন করার আগে, আপনাকে কিছু নথি বহন করতে হবে যা নিম্নরূপ:

  • প্রাক পলিসি ডাক্তারি পরীক্ষার কাগজপত্র 
  • যথাযথ ভাবে পূরণ করা প্রস্তাব ফর্ম 
  • কোনো প্রাক বিদ্যমান অবস্থার সাপোর্টিং নথি 
  • বয়সের প্রমাণপত্র 

বর্জন:

বরিষ্ঠ নাগরিক স্বাস্থ্য বীমা পরিকল্পনায় কয়েকটি বেসিক বর্জন আছে যা পলিসি দ্বারা কভার হয় না:

  • প্রাক বিদ্যমান অসুখ বা আঘাত যা প্রথম পলিসি শুরুর 4 বছরের মধ্যে নির্ণীত হয়েছে। 
  • পলিসি শুরুর তারিখের প্রথম 30 দিনের মধ্যে নির্ণীত হওয়া কোনো অসুখ, দুর্ঘটনাজনিত কারণ ছাড়া। 
  • স্বকৃত আঘাতের ফলে হওয়া খরচ (আত্মহত্যা এবং আত্মহত্যার চেষ্টার ফলে হওয়া)
  • মদ বা ড্রাগ অবুজ বা কোনো সংশ্লিষ্ট রোগের জন্য হওয়া খরচ। 
  • দাঁতের চিকিৎসা, চশমা বা কন্টাক্ট লেন্স এবং কোনো কসমেটিক সার্জারির খরচ। 
  • এইডস এর চিকিৎসার জন্য হওয়া ডাক্তারি খরচ। 
  • যুদ্ধ, পারমাণবিক আক্রমণ, দাঙ্গা, বন্ধ ইত্যাদির জন্য হওয়া আঘাত বা রোগের চিকিৎসার খরচ।