পেনশন প্ল্যান কি?
  • সস্তায় প্রিমিয়াম পান
  • তাৎক্ষণিক বার্ষিকী প্ল্যান বিকল্প
  • গ্যারান্টি সহকারে পেনশন / আয়
PX step

প্রিমিয়াম তুলনা করুন

1

2

জন্ম তারিখ
আয়
| লিঙ্গ

1

2

ফোন নং.
নাম
শহর

অগ্রসর হওয়ার মাধ্যমে আপনি আমাদের শর্তাবলী এবং গোপনীয়তার প্রকল্পটি গ্রহণ করছেন

পেনশন প্ল্যানগুলি (যা অবসরের প্ল্যান হিসাবে জনপ্রিয়) প্রতিটি ব্যক্তিকে তাঁদের উপার্জনের একটি অংশ অবসরের পরবর্তী জীবনে ভোগ করার জন্য স্থানান্তর করতে সহায়তা করে। একটি পেনশন প্ল্যানের মূল উদ্দেশ্য হলো অবসরের পরবর্তী জীবনে একটি স্থায়ী নিয়মিত উপার্জন লাভ করা যাতে একজন ব্যক্তি একটি গুণমানসম্পন্ন জীবন যাপন করতে পারেন।

একটি পেনশন প্ল্যান লাভের যোগ্যতা কি?

পেনশন প্ল্যানে বিনিয়োগ করার জন্য মূল যোগ্যতার মানদন্ড নিচে উল্লেখ করা হলো-

প্রবেশের বয়স: পেনশন প্ল্যানের প্রবেশের বয়স একটি বীমা প্ৰদানকারী সংস্থা থেকে অপরটির জন্য আলাদা হয়। কিছু কিছু প্ল্যান উপলব্ধ আছে যেখানে প্রবেশের নুন্যতম বয়স হলো 18 বছর, যেখানে অপর কিছু প্ল্যান আছে যা আপনাকে 30 বছর বয়সে বিনিয়োগ শুরু করার অনুমোদন দেয়। একই ভাবে, সর্বাধিক বয়সের ব্যাপারটি একজন বীমাকারী সংস্থা থেকে অপরটিতে আলাদা হয়, কিন্তু সাধারণ ভাবে সবকটিতে 70 বছর ই হয়।

বিনিয়োগের বয়স: এই বয়সটিতে পলিসির গ্রাহক পেনশন পেতে শুরু করেন। সাধারণভাবে, এটি 40 বছর হয় কিন্তু একটি প্ল্যান ভিত্তিক এবং কোম্পানি ভিত্তিক আলাদা আলাদা হয়।

ভারতবর্ষে নানান ধরনের পেনশন প্ল্যানগুলি কি কি?

ভারতবর্ষে, বিভিন্ন প্রকারের পেনশন উপলব্ধ যেমন ডিফার্ড এনউইটি (বিলম্বিত বার্ষিক অর্থলাভ), লাইফ এনউইটি (জীবনের পরিবর্তে বার্ষিক অর্থলাভ), ইম্মিডিয়েট এনউইটি (তাৎক্ষণিক অর্থলাভ), ডিফার্ড এনউইটি এবং ইম্মিডিয়েট এনউইটি হলো সবথেকে জনপ্রিয় প্ল্যান যা মানুষজন সাধারণত ক্রয় করে থাকেন।

চলুন এই সমস্ত পেনশন প্ল্যানগুলি সম্পর্কে সবিস্তারে দেখা যাক।

ডিফার্ড এনউইটি

একটি ডিফার্ড পেনশন প্রকল্প আপনাকে একটি নির্দিষ্ট পলিসির মেয়াদ বরাবর নিয়মিত অথবা একক প্রিমিয়াম পরিশোধের মাধ্যমে একটি বিপুল অর্থ একত্র করতে সহায়তা করে। এই ডিফার্ড পেনশন প্ল্যানগুলির থেকে বিপুল সুবিধা ও কর ছাড়ের সুযোগ পাওয়া যায়, যা পেনশন প্রকল্প গুলির সাথে একত্রিত করা সম্ভবপর। এই প্ল্যানটি সকল প্রকার গ্রাহকদের জন্য উপযুক্ত - একক ব্যক্তি যিনি নিয়মিত সুষ্ঠু ভাবে লগ্নির কথা ভাবছেন এবং যে সমস্ত ব্যক্তিদের একটু অর্থ আছে যা তাঁরা বিনিয়োগ করতে চান।

ইম্মিডিয়েট এনউইটি

একটি ইম্মিডিয়েট এনউইটি প্রকল্পর অধীনে, তক্ষনাৎ পেনশন লাভের সুবিধা শুরু হয়ে যায়। একজন ব্যক্তিকে একটি বিপুল অর্থ জমা করতে হবে এবং শীঘ্রই পেনশন চালু হয়ে যাবে। সেই ব্যক্তিটির মৃত্যুর পর, তাঁর নমিনি সেই অর্থটি পেয়ে যাবেন। আপনি বিভিন্ন এনউইটি পরিশোধ বিকল্পের মধ্যে থেকে একটি নির্বাচন করতে পারেন। এর পাশাপাশি, ভারতীয় আয়কর আইন অনুসারে আপনি পরিশোধিত প্রিমিয়ামের উপর কর ছাড়ের সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

এনউইটি শার্টেন (সুনিশ্চিত অর্থ লাভ)

বার্ষিক অর্থ গ্রহণকারী ব্যক্তিটিকে একটি নির্দিষ্ট মেয়াদের জন্য অর্থ প্রদান করা হয়। তিনি মেয়াদকাল নির্বাচন করতে পারেন এবং যদি তিনি মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্বেই মারা যান, সেক্ষেত্রে সুবিধাভোগীকে অর্থ পরিশোধ করে দেওয়া হয়।

গ্যারান্টেড এনউইটি

যেমনটি নাম থেকে বোঝা যাচ্ছে, একটি নির্দিষ্ট সময় অন্তরে যেমন 5, 10, 15 অথবা 20 বছরের জন্য এনউইটি প্ৰদান করা হয়, ব্যক্তিটি মেয়াদের মধ্যে বেঁচে থাকুক বা না থাকুক।

লাইফ এনউইটি

এই এনউইটি বিকল্পের সাথে, অর্থ গ্রহনকারীকে তাঁর মৃত্যু পর্যন্ত একটি পেনশন প্ৰদান করা হয়। যদি তিনি "উইথ পার্টনার" (সঙ্গীর সাথে) বিকল্পটি নির্বাচন করেন, সে ক্ষেত্রে অর্থ গ্রহণকারী ব্যক্তিটির মৃত্যুর পরেও, তাঁর সঙ্গী/ স্বামী অথবা স্ত্রী -কে পেনশন প্ৰদান করা হবে।

ন্যাশনাল পেনশন স্কিম (এনপিএস)

ন্যাশনাল পেনশন স্কিম অথবা জাতীয় পেনশন প্রকল্প সরকার দ্বারা পরিকল্পিত হয়েছে সেই সমস্ত মানুষদের কথা ভেবে যাঁরা একটি পেনশন তহবিল গড়ে তুলতে চান। এনপিএস হলো যথেষ্ট স্বচ্ছ এবং সাশ্রয়ী, যেখানে পেনশনের জন্য বিনিয়োজিত অর্থ একটি পেনশন ফান্ড স্কিমে জমা করা হয়। আপনি আপনার অবসরকালে 60% অর্থ প্রত্যর্পণ করতে পারেন এবং বাকি 40% আপনাকে কোন বার্ষিক অর্থ লাভের মাধ্যমে তা গ্রহণ করতে হবে।

পেনশন ফান্ড

একটি বিপুল তহবিল গড়ে তোলার জন্য পেনশন ফান্ডগুলি হলো একটি সুযোগ্য উপায়। এগুলি দীর্ঘ মেয়াদী প্রকল্পের জন্য পরিকল্পিত এবং এর ফলস্বরূপ, পেনশন ফান্ড রেগুলেটরি এন্ড ডেভলপমেন্ট অথরিটি (পিএফআরডিএ) 6 টি কর্পোরেশন (নিগমকে) ফান্ড বা তহবিল ব্যাবস্থাপনার জন্য অনুমোদন প্ৰদান করে।

ইউনিট লিঙ্কড পেনশন প্ল্যান

ইউলিপ হলো একটি বাজার-সংযুক্ত পেনশনের পণ্য। এগুলি একক ব্যক্তির জন্য উপযুক্ত যিনি দীর্ঘমেয়াদি অবসরোত্তর পরিকল্পনার কথা চিন্তা ভাবনা করছেন যা বিনিয়োগ হিসাবে দ্বিগুণ আকার ধারণ করে।

পেনশন প্ল্যানগুলির বৈশিষ্ট্য এবং সুবিধাগুলি কি কি? 

গ্যারান্টেড পেনশন/উপার্জন

পেনশন প্ল্যানে বিনিয়োগ করলে রিটায়ারমেন্ট অথবা অবসরের পর একটি স্থায়ী উপার্জনের গ্যারান্টি প্ৰদান করে। যদিও, উপার্জনটি বিনিয়োগের উপর নির্ভরশীল।

কর ছাড়ের সুবিধা

পেনশন প্ল্যানগুলি 80সি অধ্যায়ের অধীনে কর ছাড়ের যোগ্য। আপনি যদি পেনশন প্ল্যানে যোগদান করতে চান, আয়কর আইন, 1961 অনুযায়ী, VI-A (80 সি, 80সিসিসি এবং 80সিসিডি অধ্যায়ের) অধীনে নানা কর ছাড়ের সুবিধা প্ৰদান করা হয়। উদাহরণস্বরূপ, অটল পেনশন যোজনা (এপিওয়াই) এবং ন্যাশনাল পেনশন স্কিম (এনপিএস) এগুলি 80সিসিডি অধ্যায়ের অধীনে কর ছাড়ের যোগ্য।

দীর্ঘ মেয়াদী সঞ্চয়

রিটায়ারমেন্ট (অবসর) অথবা পেনশন প্ল্যান হলো একটি দীর্ঘ মেয়াদী সঞ্চয় পরিকল্পনা। এটি দীর্ঘ মেয়াদী সঞ্চয়ের সুনিশ্চয়তা প্ৰদান করে। এটি আপনাকে বার্ষিক অর্থ অনুদানে সহায়তা করে যা আপনি বিনিয়োগ করে ভবিষ্যতে স্থায়ী অর্থ উপার্জনে সক্ষম হতে পারেন।

আপদকালীন চিকিৎসা পরিস্থিতির জন্য সঞ্চয়

অবসরের পরের জীবনে একটি আপদকালীন চিকিৎসার পরিস্থিতি উপস্থিত হলে তা আপনার পকেটের জন্য যথেষ্ট ব্যয়সাধ্য প্রতিপন্ন হয়। একটি পর্যাপ্ত পেনশন প্ল্যান থাকলে আপনি এই সমস্ত অবাঞ্ছিত খরচগুলিকে খুব সহজেই মেটাতে পারবেন।

ইন্সুরেন্স কভার

বেশিরভাগ বীমা সংস্থাগুলি প্রাথমিক অবসরের পরিকল্পনার সাথে ইন্সুরেন্স কভার প্ৰদান করে যাতে বীমাকৃত ব্যক্তিটির কোন দুর্ভাগ্যবশত মৃত্যুতে তাঁর পরিবারকে ভুগতে না হয়।

ঝুঁকি-হীন বিনিয়োগ

পেনশন প্ল্যানগুলি আপনাকে বিনিয়োগের নানান ঝুঁকির হাত থেকে কভারেজ পেতে সহায়তা প্রদান করবে। এই প্ল্যানগুলি সঞ্চয়কারী প্ল্যান হিসাবে পরিগণিত হয়। সুতরাং, এতে কোন রকম ঝুঁকি জড়িয়ে থাকে না।

2020 সালে ভারতবর্ষের শ্রেষ্ঠ প্ল্যানগুলি

প্ল্যানগুলি

প্রবেশের বয়স

পলিসির মেয়াদ

বার্ষিক প্রিমিয়ামের অঙ্ক

বীমার অঙ্ক

আদিত্য বিড়লা সানলাইফ এমপাওয়ার প্ল্যান

25-70 বছর

5-30 বছর

18000 টাকা

উপলব্ধ নেই

বাজাজ লাইফ লং গোল প্ল্যান

18-65 বছর

10-25 বছর

25000 টাকা (নুন্যতম)

বার্ষিক প্রিমিয়ামের 10 গুন

এডেলউইস টোকিও লাইফ ওয়েলথ আল্টিমা

0-70 বছর

10-100 বিয়োগ প্রবেশের বয়স

48000 টাকা (নুন্যতম)

বার্ষিক প্রিমিয়ামের 10 গুন অথবা

পলিসির মেয়াদ / 2 X বার্ষিক প্রিমিয়াম 

কানাড়া এইচএসবিসি ইনভেস্ট 4জি প্ল্যান

18 বছর (নুন্যতম)

5 - 30 বছর

50,000 টাকা

উপলব্ধ নেই

* নির্বাচিত প্ল্যানের বিকল্পের উপরে মানগুলি পরিবর্তিত হতে পারে।

একটি পেনশন প্ল্যানে বিনিয়োগ করার জন্য কোন কোন বৈশিষ্ট্যগুলি গণ্য করা উচিত?

মাসিক খরচ: যখন অবসরের প্ল্যানিং এর কথা আসে, এটি উপদেশ দেওয়া হয় যে আপনার মাসিক খরচের কথাটি যেন সর্বদা মাথায় রাখা হয়। অবসরের পরবর্তী সময়কালে, একটি নুন্যতম নিয়মিত উপার্জন অথবা মাসিক উপার্জন থাকা উচিত। অতএব, নিয়মিত উপার্জন বজায় রাখার জন্য, একটি বিশাল অর্থ প্রস্তুত করা উচিত যেটি ভবিষ্যতে আপনার সমস্ত খরচের দেখভাল করার জন্য যথেষ্ট।

মুদ্রাস্ফীতি: কখনোই এটা ভুলে যাবেন না যে আপনার প্ল্যানটি যেন মুদ্রাস্ফীতির বিষয়টিকে গণ্য করে চলে। অবসরের পরবর্তী জীবনে একটি সুনিশ্চয় তহবিল গড়ে তোলার জন্য এটির উপরে নজর রাখুন।

ঝুঁকি এবং আপনার আর্থিক চাহিদার নির্বাচন: আপনাকে আপনার ঝুঁকির বিষয়টি সম্পর্কে নজর দেওয়া উচিত এবং সেই অনুসারে প্ল্যান স্থির রাখা উচিত। এর পাশাপাশি, একটি সুরক্ষিত ভবিষ্যতের জন্য আপনার আর্থিক চাহিদার দিকটিতে নজর দিন।

অনুসন্ধান: কোনো পেনশন প্ল্যান সম্পর্কে সুনিশ্চিত হওয়ার পূর্বে, তার সম্পর্কে সঠিক ভাবে অনুসন্ধান করুন। একবার দেখে নিন আপনি ঠিক যেটি চাইছেন তার সাথে এটি সামঞ্জস্যপূর্ন হবে কিনা।

তুলনা: শ্রেষ্ঠ প্ল্যানগুলির মধ্যে তুলনা করে যেটি সব থেকে উপযুক্ত সেটি নির্বাচন করুন যেটি আপনার প্রয়োজন মেটাতে সক্ষম হবে।

মন্তব্য লক্ষ্য করুন: সংস্থার সুনামের সাথে সামঞ্জস্য রেখে ইন্সুরেন্স কোম্পানি কর্তৃক প্রদত্ত প্ল্যানগুলির সম্পর্কে করা মন্তব্যগুলি খেয়াল করুন।

টাকা বাদ দেওয়ার বিষয়টি লক্ষ্য করুন: আপনার প্ল্যানগুলি আত্মসমর্পন করার জন্য আপনাকে যে অর্থ ক্ষতিপূরণ হিসাবে দিতে হবে সেই বিষয়ে লক্ষ্য করুন। সাধারণত, আপনি যখন মেয়াদ উত্তীর্ণতার পূর্বে (কোন আপদকালীন পরিস্থিতিএর ক্ষেত্রে) প্ল্যানটি আত্মসমর্পন করবেন তখন তার জন্য ক্ষতিপূরণ প্ৰদান করতে হবে। 

পেনশন প্ল্যানগুলি কি ভাবে কাজ করে?

চলুন ধরে নেওয়া যাক যে আপনার এখন 32 বছর বয়স এবং আপনি একজন স্বাস্থ্যবান ব্যক্তি যিনি 50,000 টাকা মাসে রোজগার করেন। যদি আপনার জীবনকাল 80 বছর পর্যন্ত স্থায়িত্ব হয় এবং আপনি 60 বছর বয়সে অবসর নেন, তাহলে আপনাকে অবসরের পরবর্তী জীবনে মাসে 50,000 টাকা পেনশন হিসাবে রোজগার করতে হলে মাসে মাসে কত টাকা বিনিয়োগ করতে হবে?

চলুন ধরে নেওয়া যাক মুদ্রা স্ফীতির হার 6%। সে ক্ষেত্রে আপনাকে 7.15 কোটি টাকার তহবিল গড়তে হবে যাতে আপনি অবসরের পর মাসে মাসে 50,000 টাকা পেনশন পান। যদি আপনি কোন ইউলিপ ক্রয় করার পরিকল্পনা করেন এবং 60 বছর পর্যন্ত 12% এবং অবসরের পর 5% রিটার্ন পাওয়া যায়, আপনাকে অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানোর ক্ষেত্রে মাসে মাসে 26,000 টাকার মতো বিনিয়োগ করতে হবে।

যদি আপনি 30 বছর বয়স থেকে বিনিয়োগ করতে শুরু করেন, সে ক্ষেত্রে 20,000 টাকার কাছাকাছি মাসিক বিনিয়োগ করতে হবে। এটাই হলো কম বয়সে পেনশন প্ল্যানে বিনিয়োগ করার সুবিধা। এর পাশাপাশি, আপনি যদি নিজে থেকে গণনার ক্ষেত্রে পারদর্শী না হন, সে ক্ষেত্রে আপনি পেনশন ক্যালকুলেটরের সাহায্য নিতে পারেন।

আপনার কখন রিটায়ার (অবসর) প্ল্যানিং শুরু করা উচিত?

সহজ ভাষায় এটির উত্তর হলো যত দ্রুত সম্ভব তত। প্রকৃতপক্ষে, আপনার উচিত 20র দোরগোড়া থেকেই আপনার অবসর কালের জন্য সঞ্চয় শুরু করে দেওয়া, যখন আপনি উপার্জন করতে শুরু করার দেন। এর কারণ হলো যত দ্রুত সম্ভব আপনি সঞ্চয় করতে শুরু করবেন, তত আপনি পর্যাপ্ত তহবিল গড়ে তুলতে পারবেন।

চলুন এই ব্যাপারটিকে একটি উদাহরণের সাহায্যে বোঝা যায়। আপনি 25 বছর বয়সে উপার্জন করতে শুরু করে দিয়েছেন এবং একটি কর-বহির্ভূত অবসরোত্তর একাউন্টে 3000 টাকা প্রতি বছরে বিনিয়োগের জন্য সরিয়ে রাখেন। যখন আপনি 65 বছর বয়সে এসে উপস্থিত হবেন, তখন আপনার বিনিয়োগ করা বার্ষিক 3000 টাকা অন্ততপক্ষে 3,38,000 টাকায় রূপান্তরিত হবে (আনুমানিক বার্ষিক 7% হারে বৃদ্ধি)।

পেনশন প্ল্যান কিভাবে ক্রয় করবেন?

আপনি একটি পেনশন প্ল্যান ক্রয় করার জন্য PolicyX.com এ লগ ইন করতে পারেন। নিচে ধাপগুলি উল্লেখ করা হলো-

  • এই পেজটির একদম উপরের ডান দিকের কোণে 'ফ্রি কোটস ফ্রম টপ কোম্পানিস' (শ্রেষ্ঠ কোম্পানিগুলি থেকে বিনামূল্যের দাম) খুঁজে বের করুন।
  • প্রাথমিক বিবরণগুলি যেমন জন্ম তারিখ, বার্ষিক উপার্জন, লিঙ্গ ইত্যাদি প্ৰদান করুন।
  • 'কন্টিনিউ' (এগিয়ে যান) ট্যাবটি ক্লিক করুন।
  • আপনার ফোন নম্বর, নাম, এবং শহরের নাম প্ৰদান করুন।
  • 'প্রসিড' (অগ্রসর হন) ট্যাবটি ক্লিক করুন।
  • ভারতবর্ষের শ্রেষ্ঠ কোম্পানিগুলির দ্বারা প্রদত্ত উপলব্ধ দামগুলি সম্পর্কে জানুন।
  • প্রয়োজনীয় প্ল্যান নির্বাচন করুন এবং নির্বাচিত প্ল্যানটির উপরের ডান দিকে 'ইনভেস্ট' (বিনিয়োগ) এ ট্যাপ করুন।
  • 'প্রসিড টু বাই' (ক্রয়ের জন্য অগ্রসর হন) ট্যাবটি ক্লিক করুন।
  • 'ইমেল আইডি' প্ৰদান করুন এবং 'সাবমিট' (জমা করুন) ট্যাবটি ক্লিক করুন।
  • এটি আপনাকে কোম্পানির অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটিতে নিয়েও যাবে।
  • উপলব্ধ পেমেন্ট অপশনের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় অর্থ পরিশোধ করে দিন।
  • আপনি পলিসির ডকুমেন্টের সাথে আপনার নিবন্ধিত ইমেল এড্রেসে একটি সুনিশ্চয়তা সূচক ইমেল পাবেন।

দ্রষ্টব্যঃ: কোন জিজ্ঞাষ্য থাকলে, বিনা বাধায় আমাদের টোল ফ্রি নম্বরে যোগাযোগ করবেন (1800-4200-269)। আপানি আমাদের ইমেল-ও করতে পারেন This email address is being protected from spambots. You need JavaScript enabled to view it. এই ঠিকানায়।

একটি পেনশন প্ল্যান ক্রয় করার জন্য যে সমস্ত ডকুমেন্ট এর প্রয়োজন

জন্মের প্রমান - বার্থ সার্টিফিকেট (জন্মের শংসাপত্র), 10ম অথবা 12র মার্কশিট, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট অথবা ভোটার আইডি।

পরিচয় পত্র - ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, ভোটার আইডি, প্যান কার্ড অথবা আধার কার্ড, যা আপনার নাগরিকত্বের প্রমান দেয়।

ঠকানার প্রমান - বিদ্যুতের বিল, টেলিফোন বিল, রেশন কার্ড, ড্রাইভিং লাইসেন্স অথবা পাসপোর্ট যেখানে স্থায়ী ঠিকানার উল্লেখ থাকতে হবে।

উপার্জনের প্রমান - বেতনের স্লিপ, ফর্ম 16 অথবা এমপ্লয়ার সার্টিফিকেট (নিয়োগকর্তার শংসাপত্র)।

আবেদনের ফর্ম- সম্পুর্ন আবেদন পত্রটি সঠিক ভাবে ভর্তি করার প্রয়োজন আছে।

শারীরিক পরীক্ষা - বেশ কিছু কোম্পানি আপনাকে শারীরিক পরীক্ষার কথা বলবে এটা নিশ্চিত করতে যে বীমাকৃত ব্যক্তিটির কোনো স্থায়ী অসুস্থতা বা রোগ আছে কি না।